• বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:১৯ অপরাহ্ন
  • English Version

ই-ক্যাবের সভাপতি শমী কায়সার, সাধারণ সম্পাদক তমাল

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক / ৩৪ ফেসবুক শেয়ার
আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ২১ জুন, ২০২২
bd tech news

অনলাইন উদ্যোক্তাদের বাণিজ্য সংগঠন ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব) এর কার্যনির্বাহী পরিষদ নির্বাচন ২০২২ এ সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন বর্তমান সভাপতি শমী কায়সার এবং সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আব্দুল ওয়াহেদ তমাল, ইনিও বর্তমান কমিটিতে একই পদে রয়েছেন। আজ ২০ মার্চ ২০২২ সংগঠনটির শীর্ষ কর্মকর্তা পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এতে ৫টি পদে ৫ জন শীর্ষ কর্মকর্তা নির্বাচিত হন। নির্বাচিত অন্যান্যরা হলেন সহ-সভাপতি মোহাম্মদ সাহাব উদ্দিন, যুগ্ন সম্পাদক নাছিমা আক্তার নিশা এবং অর্থ সম্পাদক আসিফ আহনাফ। আসিফ আহনাফ বর্তমান কমিটিতে পরিচালক হিসেবে দায়িত্বরত ছিলেন।

বিগত ১৮ জুন ২০২২, শনিবার ই-ক্যাবের কার্যনির্বাহী পরিষদ এর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে মোট ৩১ জন প্রার্থীর বিপরীতে পরিচালক পদে ৯ জন নির্বাচিত হন। ৭৯৫ জন ভোটারের মধ্যে ৬১১ জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। বিগত ২৮ মার্চ ২০২২ ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী আজ ২০শে মার্চ ২০২২ বাণিজ্য সংগঠন হিসেবে ই-ক্যাবের শীর্ষ কর্মকর্তাপদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচিত পরিচালকদের ৫ জন ভিন্ন ভিন্ন পদের জন্য মনোনয়োন পত্র সংগ্রহ ও জমা করেন। একই পদে একাধিক প্রার্থী না থাকায় আজ নির্বাচন বোর্ড ৫ জনকে বিনা প্রতিদ্ধন্ধিতায় নির্বাচিত ঘোষনা করেন। আজ নির্বাচন বোর্ডের সভা শেষে নির্বাচিতদের নামের তালিকা প্রকাশ করা হয়।

শমী কায়সার নির্বাচিত হয়েছেন ধানসিঁড়ি ডিজিটাল লিমিটেড থেকে এবং মোহাম্মদ আব্দুল ওয়াহেদ তমাল কমজগৎ টেকনোলজি থেকে। অন্যান্য প্রার্থীরা যথাক্রমে সাহাব উদ্দিন শিপন ডায়বেটিস স্টোর, নাছিমা আক্তার নিশা, রেভারী কর্পোরেশন এবং আসিফ আহনাফ এর প্রতিষ্ঠান ব্রেকব্রাইট।

নির্বাচিত অন্যান্য সদস্যরা পরিচালক হিসেবে ভূমিকা পালন করবেন। ৯ জনের এই পরিষদ আগামী ২ বছর এই খাতে ব্যবসায়ীদের জন্য কাজ করবেন। নির্বাচনে ৩টি প্যানেল ৯ জন করে ২৭ জন ও ৪ জন স্বতন্ত্রপ্রার্থী অংশ নেন। ২০১৪ সালে প্রতিষ্ঠিত এই বাণিজ্য সংগঠনটিতে এর আগে ৩টি পরিষদ বিনা প্রতিদ্ধন্ধিতায় নির্বাচিত হয়। এবারই প্রথম উৎসব ও আনন্দমূখর পরিবেশে সংগঠনটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

পরিচালক পদে আরো যারা নির্বাচিত হয়েছেন ফুডপান্ডা বাংলাদেশ এর সৈয়দা আম্বারিন রেজা, পেপারফ্লাই লিমিটেড থেকে শাহরিয়ার হাসান, ডিজিটাল হাব লিমিটেড থেকে সাইদ রহমান এবং সেবা ডট এক্সওয়াইজি থেকে ইলমুল হক।  প্রথম ৮ জন প্রার্থী অগ্রগামী নামের প্যানেল থেকে একজন নির্বাচিত হয়েছেন দি চেঞ্জ ম্যাকার্স প্যানেল।

নির্বাচিত সভাপতি শমী কায়সার বলেন, আমরা বিগত বছরগুলোতে বিশেষ করে কোভিড সময়ে সদস্য এবং ভোটারদের পাশে ছিলাম। এই খাতের উন্নয়নে কাজ করেছি। এই খাতটি শুরু থেকে আজকের অবস্থানে আনার জন্য কাজ করেছি। তারই প্রতিদান হিসেবে এই খাতের ব্যবসায়ীরা আমি এবং আমার দলের পক্ষে রায় দিয়েছে। আমরা যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছি তা রক্ষা করার জন্য আগামী ২ বছর আমি ও আমার টিম কাজ করবো এবং আমরা সবাইকে নিয়ে এই খাতকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।

উল্লেখ্য বর্তমান কমিটির মেয়াদ শেষ হবে আগামী ৪ জুলাই ২০২২। এর নতুন নির্বাচিত কমিটির কাছে দায়িত্বভার গ্রহণ করবেন। শমী কায়সারের নেতৃত্বে অগ্রগামী প্যানেল থেকে ৮ জন নির্বাচিত হলেও মোট নির্বাচিতদের ৩ জন নতুন পরিচালক রয়েছেন। অন্যান্যরা বর্তমান কমিটিতে দায়িত্ব পালন করছেন। নতুন পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পাবেন সৈয়দা আম্বারিন রেজা, শাহরিয়ার হাসান ও  ইলমুল হক সজিব।

 

আওয়াজ ডটকম ডটবিডি, ২১ জুন ২০২২


আপনার মতামত লিখুন :

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর