• রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ০৫:০৭ অপরাহ্ন
  • English Version

চ্যাটজিপিটি’র নতুন সংস্করণ, বিনামূল্যে ব্যবহার করা যাবে

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক / ৩৬ ফেসবুক শেয়ার
আপডেট সময় : বুধবার, ১৫ মে, ২০২৪

জনপ্রিয় এআই চ্যাটবট চ্যাটজিপিটি’র নতুন সংস্করণ সম্প্রতি  প্রকাশ করেছে ওপেনএআই। মডেলটির নাম ‘জিপিটি-৪ও’, যা ব্যবহার করার সুযোগ পাবেন চ্যাটজিপিটি’র সকল ব্যবহারকারী, এমনকি সেবাটির বিনামূল্যের গ্রাহকরাও।

চ্যাটজিপিটি’র আগের বিভিন্ন মডেলের চেয়ে দ্রুত কাজ করে এটি। চ্যাটবটটি এমনভাবে প্রোগ্রাম করা যাতে একে আলাপী মনে হয়। এমনকি কখনও কখনও বিভিন্ন প্রম্পটের জবাবে ‘ফ্লার্ট’ করতেও দেখা যেতে পারে চ্যাটবটটিকে।

চ্যাটবটটির নতুন সংস্করণে পড়ার, ছবি নিয়ে আলাপ করার, ভাষা অনুবাদের এমনকি চাক্ষুষ অভিব্যক্তি থেকে আবেগ শনাক্ত করার সক্ষমতা আছে, যেখানে আগের বিভিন্ন প্রম্পট মনে রাখতে এর সঙ্গে যোগ হয়েছে একটি মেমোরিও।

বিবিসি বলছে, এর মধ্যে কথোপকথন বাধা দেওয়ার সুবিধা থাকার পাশাপাশি এর কথা বলার ছন্দও বেশ সহজ, যেখানে কোনও প্রশ্নের জবাব দেওয়ার ক্ষেত্রে একটুও দেরি করে না চ্যাটবটটি।

জিপিটি-৪ও’র ভয়েস সংস্করণের এক নমুনা পরীক্ষার সময় এটি খাতায় লেখা সহজ সমীকরণ কীভাবে সমাধান করতে হয়, সে সম্পর্কে পরামর্শ দিলেও এর সহজ সমাধানটি প্রকাশ করেনি।

এ ছাড়া, কয়েকটি কম্পিউটার কোড বিশ্লেষণের পাশাপাশি ইতালীয় ও ইংরেজি ভাষায় অনুবাদ ও একজন হাস্যোজ্জল ব্যক্তির সেলফি থেকে তার অভিব্যক্তি শনাক্ত করে দেখিয়েছে নতুন চ্যাটবটটি।

একজন মার্কিন নারীর কণ্ঠ ব্যবহার করে চ্যাটবটটি ব্যবহারকারীদের জিজ্ঞেস করে, তারা কেমন আছেন। আর যখনই এটি নিজের প্রশংসা শুনতে পায়, তার জবাবে চ্যাটবটটি বলে, “থামুন, আপনি আমাকে লজ্জা দিচ্ছেন!”

তবে চ্যাটবটটি একেবারে নির্ভুল ছিল না- এক পর্যায়ে হাস্যোজ্জল ব্যক্তির ছবিকে ভুলে কাঠের পৃষ্ঠ ধরে নিয়েছিল এটি। এমনকি একে ব্যবহারকারীর প্রম্পট না দেখানো সমীকরণও সমাধান করতে দেখা গেছে।

এর থেকে ইঙ্গিত মেলে, এ ধরনের ত্রুটি ও ‘হ্যালুসিনেশনের’ কারণে চ্যাটবটটি অনির্ভরযোগ্য ও সম্ভবত অনিরাপদ হয়ে ওঠার আগেই এটি নিয়ে আরও কাজ করার দরকার আছে।

ওপেনএআই কোন দিকে এগোচ্ছে, নতুন চ্যাটবটটিতে তারও ঝলক মিলেছে। আর এর এআই ডিজিটাল সহায়ক ব্যবস্থার পরবর্তী পর্যায় হয়ে ওঠার সম্ভাবনা আছে বলে প্রতিবেদনে লিখেছে বিবিসি।

চ্যাটবটটি অনেকটা ‘সিরি’ বা ‘হেই, গুগল’-এর ‘টার্বো-চার্জড’ সংস্করণের মতো কাজ করে, যা অতীতের তথ্য মনে রাখার পাশাপাশি কণ্ঠ বা টেক্সট দুই উপায়েই যোগাযোগ করতে সক্ষম।

ওপেনএআইয়ের প্রযুক্তি প্রধান মিরা মুরাতি জিপিটি-৪ও’কে ব্যাখ্যা করেছেন ‘যাদুকরী’ বলে। তিনি এও বলেন, পণ্যটি চালু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই এর ‘ভাব প্রকাশের অস্পষ্টতা’ সরিয়ে ফেলবে কোম্পানিটি।

সূত্র: বিবিসি।

 

আওয়াজ ডটকম ডটবিডি, ১৫ মে ২০২৪


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর