• বুধবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২৩, ০১:১৭ অপরাহ্ন
  • English Version

ছয়টি আরব দেশ ঘুরে ইসরায়েলে ফিরলেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন

বাংলাদেশ ডেস্ক / ৯৪ ফেসবুক শেয়ার
আপডেট সময় : সোমবার, ১৬ অক্টোবর, ২০২৩

ছয়টি আরব দেশ সফর শেষে আবার ইসরায়েলে ফিরেছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন। ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, সোমবার তিনি জেরুজালেমে ইসরায়েলি নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করতে পারেন। তার এই সফরের প্রধান লক্ষ্য হলো হামাসের বিরুদ্ধে ইসরায়েলের লড়াইয়ে উদ্যোগে সমন্বয় এবং গাজার মানবিক সংকট এড়ানোর উপায় বের করা।

হামাস ও ইসরায়েলের মধ্যে শনিবার সংঘর্ষ শুরু হওয়ার পর বৃহস্পতিবার ইসরায়েলের প্রতি সংহতি জানাতে তেল আবিব পৌঁছান ব্লিঙ্কেন। এরপর তিনি সৌদি আরব, মিসর, বাহরাইন, সংযুক্ত আরব আমিরাত, কাতার ও জর্ডান সফর করেছেন।

গতকাল রবিবার কায়রোতে সাংবাদিকদের ব্লিঙ্কেন বলেছেন, গত কয়েক দিনে আমি যা শুনেছি ও জানতে পেরেছি তা  তুলে ধরার একটি সুযোগ চাই।

সোমবার জেরুজালেমে ইসরায়েলি নেতাদের সঙ্গে তিনি বৈঠক করবেন বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে। এমন সময় এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে যখন গাজায় স্থল অভিযান পরিচালনার প্রস্তুতি নিচ্ছে ইসরায়েলের সেনাবাহিনী। এছাড়া এপি জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনও ইসরায়েল সফরের পরিকল্পনা করছেন।

৭ অক্টোবর ফিলিস্তিনি সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাসের হামলার পর যুদ্ধ ঘোষণা করেছে ইসরায়েল। হামাসের হামলায় ১ হাজার ৪০০ ইসরায়েলি নিহত হয়েছেন। জবাবে গাজায় অবিরাম বোমাবর্ষণ করে যাচ্ছে দেশটির সেনাবাহিনী। ইসরায়েলি বোমা বর্ষণে নিহত ফিলিস্তিনিদের সংখ্যা ২ হাজার ৬৭০ জন ছাড়িয়েছে। গাজার উত্তরাঞ্চল থেকে ১১ লক্ষাধিক ফিলিস্তিনিকে দক্ষিণাঞ্চলে চলে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে ইসরায়েলের সেনাবাহিনী। অবরুদ্ধ উপত্যকা মানবিক বিপর্যয়ের মুখে রয়েছে।

কর্মকর্তারা বলছেন, আরব দেশগুলোর নেতাদের কাছ থেকে হামাসের বিরোধিতা ও ফিলিস্তিনিদের দুর্ভোগের কথা শুনেছেন ব্লিঙ্কেন।

কায়রোতে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, আমি স্পষ্ট করেছি হামাসের সঙ্গে আগের মতো কাজ চালিয়ে যাওয়া যাবে না, উচিত হবে না। একই সময়ে আমরা গাজার মানুষের প্রয়োজনীয়তা মেটাতে সবকিছু করতে আমরা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। হামাসের নৃশংসতার জন্য বেসামরিকদের দুর্ভোগ উচিত না।

যুক্তরাষ্ট্রের চাপে রবিবার ইসরায়েল গাজায় পানির সরবরাহ পুনরায় চালু করেছে। এর আগে ছিটমহলটিতে খাদ্য, পানি, ওষুধ ও বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। গাজায় মানবিক সহযোগিতা নিশ্চিত করার জন্য অবসরপ্রাপ্ত কূটনীতিক ডেভিড স্যাটারফিল্ডকে সমন্বয় করার দায়িত্ব দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। তিনি সোমবার ইসরায়েল পৌঁছাতে পারেন।

বাইডেন প্রশাসন বলে আসছে, ইসরায়েলের নিজেকে রক্ষার অধিকার রয়েছে। তবে ইসরায়েলকে সংযত বা যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানানো থেকে ওয়াশিংটন বিরত থেকেছে। সিবিএস নিউজকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বাইডেন ইসরায়েল কর্তৃক গাজা দখলের বিষয়ে সতর্ক করেছেন। তিনি বলেছেন, আমি মনে করি এটি একটি ভুল হবে।

 

আওয়াজ ডটকম ডটবিডি, ১৬ অক্টোবর ২০২৩


আপনার মতামত লিখুন :

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর