• শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:১৪ পূর্বাহ্ন
  • English Version

দেশে ইনোভেশন ইকোসিস্টেম গড়ে তোলার মাধ্যমে ডিজিটাল উদ্যোক্তা তৈরি করা হবে : পলক

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক / ২৯৭ ফেসবুক শেয়ার
আপডেট সময় : শনিবার, ১২ ফেব্রুয়ারী, ২০২২
bd tech news

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, দেশে ইনোভেশন ইকোসিস্টেম গড়ে তোলার মাধ্যমে বেসরকারি বিনিয়োগের গতি বৃদ্ধি করতে ডিজিটাল উদ্যোক্তা তৈরি করবে ‘শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার’।

প্রতিমন্ত্রী শনিবার (১২ ফেব্রুয়ারি) চাঁদপুরের দক্ষিণ মতলব উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন উপলক্ষে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম এবং চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য মো. নুরুল আমিন রুহুল।

প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার’ চাঁদপুরবাসীর জন্য প্রধানমন্ত্রীর এক অনন্য উপহার। প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি বিষয়ক মাননীয় উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ এর ব্রেইন চাইল্ড এই প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে একদিকে যেমন বেকারত্ব দূর হবে, একই সাথে তথ্যপ্রযুক্তিতে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের মাধ্যমে দেশের অর্থনীতির সুবিধা হবে। আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার থেকে বের হয়ে তরুণ উদ্যোক্তারা আইটি ইন্ডাস্ট্রিতে যেনো ব্যাপক পরিসরে কাজ করতে পারেন সে লক্ষ্যে দেশের বিভিন্ন জায়গায় ৩৯টি হাই-টেক পার্কও স্থাপন করা হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের প্রতিযোগিতা মোকাবেলায় বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে আইওটি, রোবোটিক্স, সাইবার সিকিউরিটিসহ উচ্চপ্রযুক্তি নিয়ে কাজ করার লক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আইটি বিজনেস ইনকিউবেটর এবং স্পেশালাইজড ল্যাব স্থাপন করা হচ্ছে। এছাড়াও মাদারীপুরের শিবচরে ‘শেখ হাসিনা ইনস্টিটিউট ফর ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজি (শিফট)’ স্থাপন করা হচ্ছে। গত ০৮ ফেব্রুয়ারি প্রকল্পটি একনেকে অনুমোদিত হয়েছে। এ সকল প্রকল্পসমূহ বাস্তবায়িত হলে তরুণরা আর চাকুরির পেছনে ছুটতে হবে না, নিজেরাই উদ্যোক্তা হয়ে মানুষকে চাকুরি দিবে।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম বলেন, প্রতিযোগিতার এই যুগে আমাদের তরুণদের টিকে থাকতে হলে প্রযুক্তি শিক্ষার বিকল্প নাই। সরকার এজন্যই একটি প্রযুক্তি নির্ভর জাতি গড়ে তুলতে কাজ করে চলেছে। আমাদের রপ্তানি খাতেও ডিজিটাল ডিভাইস অবদান রাখতে পারে। ‘শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার’ থেকে ট্রেনিং নিয়ে এখানকার তরুণ-তরুণীরা নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারবে, অনেক মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য মো. নুরুল আমিন রুহুল বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. বিকর্ণ কুমার ঘোষ । বাংলাদেশ ডিজেল প্ল্যান্ট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সৈয়দ মো. রফিকুল ইসলাম, প্রকল্প পরিচালক ও যুগ্ম সচিব একেএম আব্দুল্লাহ খান, মতলব দক্ষিণ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বি এইচ এম কোভিদ আহমেদ, মতলব পৌরসভার মেয়র আওলাদ হোসেন লিটন , আইসিটি বিভাগ ও স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

পরে প্রতিমন্ত্রীদ্বয় মতলব দক্ষিণ উপজেলার উত্তর উদ্দমদীতে বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ও ইনকিউবেশন সেন্টারের ভিত্তিপ্রস্তরেরফলক করেন এবং লার্নিং এন্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামের আওতায় ফ্রিল্যান্সারদের মাঝে ল্যাপটপ বিতরণ করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর