• শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:০১ পূর্বাহ্ন
  • English Version

ফাইভ-জি নিলামে সাড়ে ১০ হাজার কোটি টাকার তরঙ্গ কিনেছে ৪টি মোবাইল অপারেটর

তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিবেদক / ২১১ ফেসবুক শেয়ার
আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ৩১ মার্চ, ২০২২
bd telecom news

দেশের চার অপারেটর খুব দ্রুতই নিজেদের কেনাকাটা সেরে নিয়েছে।বৃহস্পতিবার রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে সকাল ১১ টা ৪০ মিনিটে নিলাম শুরু হয়ে তা শেষ হয়ে যায় সাড়ে ১২ টার দিকে।নিলামে গ্রামীণফোন ২ দশমিক ৬ গিগাহার্টজ ব্যান্ডে ৬০ মেগাহার্টজ স্পেকট্রাম, রবিও ২ দশমিক ৬ গিগাহার্টজ ব্যান্ডে ৬০ মেগাহার্টজ স্পেকট্রাম কিনেছে।

বাংলালিংক কিনেছে ২ দশমিক ৩ গিগাহার্টজ ব্যান্ডে ৪০ মেগাহার্টজ।  টেলিটক কিনেছে ২ দশমিক ৩ গিগাহার্টজ ব্যান্ডে ৩০ মেগাহার্টজ স্পেকট্রাম ।

নিলামে দুই ব্যান্ড মিলে স্পেকট্রাম ছিলো ২২০ মেগাহার্টজ । এরমধ্যে বিক্রি হলো ১৯০ মেগাহার্টজ । সবমিলে ১ হাজার ২৩৫ মিলিয়ন ডলার যা টাকায় ১০ হাজার ৬৪৫ কোটি টাকা ।এবারে রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি অকশন-২০২২’ নামে নিলাম অনুষ্ঠিত হয়।

মূলত ফাইভজি চালুর জন্য এই স্পেকট্রাম নিলাম । তবে এ নিলামের স্পেকট্রাম ফোরজি নেটওয়ার্ককে আরও সমৃদ্ধ ও সম্প্রসারণে ব্যবহারের পরিকল্পনায়ও গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে।

মোট ২২ ব্লকে স্পেকট্রাম নিলাম হয়েছে। এরমধ্যে ২ দশমিক ৩ গিগাহার্টর্জে ১০টি ব্লক এবং ২ দশমিক ৬ গিগাহার্টজে ১২ টি ব্লক ছিলো।প্রতি ব্লকে ১০ মেগাহার্টজ করে স্পেকট্রাম নিলাম হয়েছে। নিলামে প্রতি মেগাহাটর্জ স্পে ।

ফোর-জি ও ফাইভ-জি’র মধ্যে পার্থক্য ॥ ফাইভ-জি একেবারে নতুন একটি রেডিও প্রযুক্তি। তবে প্রথমেই হয়তো দ্রুতগতির বিষয়টি নজরে আসবে না। কারণ, নেটওয়ার্ক অপারেটররা বর্তমান ফোর-জি নেটওয়ার্ককে ফাইভ-জিতে বাড়িয়ে গ্রাহকদের আরও উন্নত সেবা দিতে চাইবে। তবে দ্রুতগতির বিষয়টি নির্ভর করবে কোন স্পেকট্রাম ব্যান্ডে ফাইভ-জি ব্যবহার করা হচ্ছে এবং মোবাইল কোম্পানিগুলো মাস্ট এবং ট্রান্সমিটারের পেছনে কতটা বিনিয়োগ করছে। বর্তমানের ফোর-জি প্রযুক্তির নেটওয়ার্ক গড়ে সর্বোচ্চ ৪৫ এমবিপিএস গতি সুবিধা দিতে পারে। এ বিষয়ে চিপ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান কোয়ালকম বলছে, ফোর-জির তুলনায় ফাইভ-জি ১০ থেকে ২০ গুণ গতি দিতে পারে। উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, একটি ভাল মানের চলচ্চিত্র হয়তো মাত্র এক মিনিটেই ডাউনলোড করা যাবে। যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও অস্ট্রেলিয়ায় এরই মধ্যে চালু হয়েছে পঞ্চম প্রজন্মের মুঠোফোন নেটওয়ার্ক ফাইভ-জি। গ্লোবাল সিস্টেম ফর মোবাইল কমিউনিকেশন্নের (জিএসএম) মতে, ২০২৫ সালের মধ্যে বিশ্বব্যাপী ফাইভ-জি নেটওয়ার্কের ১ দশমিক ৭ বিলিয়নের বেশি গ্রাহক থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

 

আওয়াজ, ৩১ মার্চ ২০২২


আপনার মতামত লিখুন :

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর