• রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ০৬:৩০ অপরাহ্ন
  • English Version

রাসেল টি আহমেদের নেতৃত্বে নবীন-প্রবীণের সমন্বয়ে ‘ওয়ান টিম’

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক / ৬৫ ফেসবুক শেয়ার
আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২৪

আগামী ৮ মে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে দেশের সফটওয়্যার খাতের বাণিজ্যিক সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়ার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) এর ২০২৪-২০২৬ মেয়াদের দ্বিবার্ষিক ১১ সদস্যের কার্যনির্বাহী পরিষদ (ইসি) এর নির্বাচন। বেসিস’র ১৫তম ইসি নির্বাচন প্যানেল ভিত্তিক হচ্ছে বলে জানা যায়। অন্তত তিনটি প্যানেলে এবারের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

নির্বাচনের মৌসুম হওয়ার আগে থেকেই বেসিস সদস্যদের মধ্যে এই নিয়ে শুরু হয়ে গেছে নানান জল্পনা-কল্পনা, চুলচেরা বিশ্লেষণসহ আলোচনা-সমালোচনা। বেসিস’র ইতিহাসে সর্বোচ্চ সংখ্যক প্রতিযোগী নিয়ে এবার সবচাইতে জাকজমকপুর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এবারের নির্বাচনের পরিবেশ বেশ জমে ওঠেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বেসিস অফিস পাড়ায়।

আসন্ন বেসিস’র ২০২৪-২০২৬ মেয়াদের ১১ সদস্যের ইসি নির্বাচনে বর্তমান সভাপতি এবং টিম ক্রিয়েটিভের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রাসেল টি আহমেদ এর নেতৃত্বে ‘ওয়ান টিম’ নামে প্যানেল ঘোষণা করা হয়েছে। এই প্যানেলে রয়েছেন দেশের আইসিটি খাতের কয়েকজন শীর্ষ ও পরিচিত মুখ। পুরোনো ও নতুনের সমন্বয়ে ‘ওয়ান টিম’ একটি দল হিসেবে অংশগ্রহণ করছে।

‘ওয়ান টিম’ প্যানেলের প্রধান রাসেল টি আহমেদ বেসিস’র ২০২২-২০২৪ মেয়াদের ইসি’তে সভাপতি; ২০১৬-১৮ মেয়াদে সিনিয়র সহসভাপতি; ২০১৪-১৬ মেয়াদে সিনিয়র সহসভাপতি; ২০১৩-১৪ মেয়াদে মহাসচিব এবং ২০১২-১৩ মেয়াদে মহাসচিব ছিলেন।

ওয়ান টিম: বর্তমান বেসিস সভাপতি এবং টিম ক্রিয়েটিভের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রাসেল টি আহমেদ এর নেতৃত্বে সাধারণ ক্যাটাগরিতে রয়েছেন সিসটেক ডিজিটাল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম রাশিদুল হাসান; বেস্ট বিজনেস বন্ড লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক উত্তম কুমার পাল; টেকনো গ্রাম লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এ কে এম আহমেদুল ইসলাম বাবু; ডিভাইন আইটি লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইকবাল আহমেদ ফখরুল হাসান; এ আর কমিউনিকেশন্সের প্রতিষ্ঠাতা এম আসিফ রহমান; শ্যুটিং স্টার লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা দিদারুল আলম; রেইজ আইটি সলিউশন্স লিমিটেডের কে এ এম রাশিদুল মজিদ।

সহযোগী ক্যাটাগরিতে রয়েছেন নেক্সট ভেঞ্চার অ্যান্ড ফাইনালিটিক্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আব্দুল্লাহ জায়েদ। অ্যাফিলিয়েট ক্যাটাগরিতে রয়েছেন কার্নিভাল অ্যাসিউর লিমিটেডের পরিচালক বিপ্লব ঘোষ রাহুল। আন্তর্জাতিক ক্যাটাগরিতে রয়েছেন মাস্টারকার্ড এর কান্ট্রি ম্যানেজার সৈয়দ মোহাম্মদ কামাল।

ব্যক্তির ওপরে দল, দলের ওপরে বেসিস- ‘ওয়ান টিম’ এর এই মূল দর্শনকে মাথায় রেখে নিজ নিজ ব্যবসায় দারুণভাবে সফল এবং ইন্ডাস্ট্রিকে অনেক অনেক গুন সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে দৃঢ়ভাবে অঙ্গীকারবদ্ধ কয়েকজন উদ্যোক্তাকে নিয়ে এবারের প্যানেলটি গঠন করা হয়েছে। আগামীর নতুন, দক্ষ এবং সুচারু নেতৃত্ব তৈরী হোক এবং বেসিসকে আরও সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাক, দল গঠনের সময় এটিও বিবেচনায় রাখা হয়েছে।

‘ওয়ান টিম’ প্যানেল প্রধান রাসেল টি আহমেদ

প্যানেল প্রধান রাসেল টি আহমেদ বলেন, ‘‘দেশের সফটওয়্যার ও আইটি খাতকে এগিয়ে নিতে আমরা কাজ করতে চাই। নতুন উদ্যম এবং নতুন প্রত্যয় নিয়ে বেসিস এবং আইসিটি শিল্পকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে বেসিস’র প্রত্যেক সদস্য আজ সংকল্পবদ্ধ। বেসিস ও আইসিটি খাতকে কাছ থেকে দেখার অভিজ্ঞতা আমাকে এই শিল্পের পেইন পয়েন্টগুলো বুঝার সক্ষমতা দিয়েছে। বেসিস ব্র্যান্ড তথা বেসিস’র পতাকাকে জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে সুউচ্চ মর্যাদায় তুলে ধরতে সম্মিলিতভাবে সর্বাত্মক ভূমিকা রাখার চেষ্টা করেছি। আবারও সময় এসেছে বেসিস’র সুমহান ঐতিহ্যকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার।’’

তিনি আরও বলেন, ‘‘আমরা বিশ্বাস করি, আইসিটি খাতের প্রতিটি সদস্যই সমানভাবে এই খাতের উন্নয়ন অংশীদার। প্রত্যেক সদস্যের উন্নয়ন মানেই এই খাতের উন্নয়ন। আমরা বিভেদ নয়, সংযুক্তিতে বিশ্বাসী। পারস্পরিক মূল্যবোধ, সচেতনতা, শ্রদ্ধাবোধ, নলেজ শেয়ারিং এবং সর্বোপরি সকল সদস্যের সম অধিকার নিশ্চিত করে সম্মিলিতভাবে এগিয়ে চলাই আমাদের মূল লক্ষ্য। বেসিস’র সকল সচেতন এবং প্রগতিশীল মনোভাবসম্পন্ন সদস্য মিলেই আমরা একটি টিম- আর পেছনে যাওয়া যাবে না, এবার দুরন্ত গতিতে আইসিটি খাতকে সামনে এগিয়ে নেয়ার সময়। প্রতিটি সদস্যের সমান অধিকার নিশ্চিত করতে আমরা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।’’

আগামী ৮ মে রাজধানীর মহাখালীতে অবস্থিত রাওয়া কনভেনশন সেন্টারে ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন মোট ১ হাজার ৪৬৪ জন ভোটার। এদের মধ্যে সাধারণ থেকে ৯৩২, সহযোগী থেকে ৩৮৯, অ্যাফিলিয়েট থেকে ১৩৪ ও আন্তর্জাতিক ক্যাটাগরি থেকে ৯ জন ভোটার হয়েছেন। বেসিস’র ১১টি পদে সাধারণ ক্যাটাগরি থেকে ৮ জন এবং সহযোগী, অ্যাফিলিয়েট ও আন্তর্জাতিক ক্যাটাগরি থেকে ১ জন করে নির্বাচিত হবেন।

এবারের নির্বাচনের সবচাইতে আকর্ষণীয় এবং উল্লেখযোগ্য ঘটনা হচ্ছে, বেসিস’র ইতিহাসে রেকর্ড সংখ্যক ৩৩ জন বেসিস সদস্য তাদের প্রার্থীতা প্রদানের মাধ্যমে বেসিস তথা ইন্ডাস্ট্রির সেবায় নিজেদের নিয়োজিত করার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। নির্বাচন কতটুকু প্রতিদ্বন্দীতাপূর্ণ মুলক হবে তা সময়ই বলে দিবে। আনন্দমুখর এবং অংশগ্রহণমূলক হওয়ার কারণে বেসিস নির্বাচন এবং নির্বাচিত নেতৃত্বের গ্রহণযোগ্যতা সবসময়ই অনেক বেশি থাকে।

সময়ের পরিক্রমায় একদিকে যেমন বেসিস পরিবারের সদস্য সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে, তেমনিভাবে আভ্যন্তরীণ এবং আন্তর্জাতিক বাজারে ব্যবসার প্রসার এবং সম্ভাবনা বিবেচনায় বেসিস’র গুরুত্ব এখন অপরিসীম। তাই অনেক অনেক যোগ্য প্রার্থীর এবারের নির্বাচনে অংশগ্রহণের বিষয়টি ভীষণ ইতিবাচক।

নির্বাচনী তফসিল

নির্বাচনী তফসিল অনুযায়ী চুড়ান্ত বৈধ প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করা হবে ২০ এপ্রিল (শনিবার) বিকাল ৪টা। প্রার্থী পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত হবে ২২ এপ্রিল (সোমবার)। নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে রাজধানীর রাওয়া কনভেনশন সেন্টারে আগামী ৮ মে (বুধবার) সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত। ভোট গণনা করা হবে সেই দিনই সন্ধ্যা ৬টা। ফলাফল ঘোষনা সন্ধ্যা ৭টা। নির্বাচিত ১১ ইসি থেকে পদবন্টনের নির্বাচন ৯ মে (বৃহস্পতিবার) বিকাল ৫টা। চুড়ান্ত নির্বাহী পরিষদের নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশ ১১ মে (শনিবার)।

 

আওয়াজ ডটকম ডটবিডি, ১৮ এপ্রিল ২০২৪


আপনার মতামত লিখুন :

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর