• বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:৫২ পূর্বাহ্ন
  • English Version

রিয়েলমি চলতি বছর আলোড়ন তুলবে

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক / ৩২ ফেসবুক শেয়ার
আপডেট সময় : রবিবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০২২
bd tech news

দ্রুত বর্ধনশীল স্মার্টফোন ব্র্যান্ড রিয়েলমি, ২০২১ সালে বিশ্বের বিভিন্ন বাজারে অভূতপূর্ব প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে এবং চলতি বছর এর জিটি সিরিজের ফোনের সাথে প্রিমিয়াম ও হাই-এন্ড স্মার্টফোন বাজারে ব্যাপক সাড়া ফেলতে যাচ্ছে।

নতুন বছরের আগমনের সাথে, রিয়েলমি ব্যবহারকারীদের জন্য আরও উদ্ভাবনী স্মার্টফোন নিয়ে আসার প্রস্তুতি নিচ্ছে। এই উপলক্ষে, রিয়েলমি’র প্রতিষ্ঠাতা এবং সিইও স্কাই লি গত বছর রিয়েলমি’র অর্জিত মাইলফলকসমূহ এবং নতুন বছরে এই স্মার্টফোন নির্মাণকারীর পরিকল্পনা বর্ণনা করে একটি খোলা চিঠি লিখেছেন।

গত বছরের আগস্টে, সবচেয়ে কম সময়ে সারা বিশ্বে ১০ কোটি স্মার্টফোন শিপমেন্টের মাধ্যমে দ্রুততম স্মার্টফোন ব্র্যান্ডে পরিণত হয় রিয়েলমি। এই রেকর্ডভাঙা অর্জনের পর, রিয়েলমি’র বার্ষিক স্মার্টফোন বিক্রির পরিমাণ ৬ কোটি ইউনিটের রেকর্ড ছোঁয়, যা আগের বছরের তুলনায় ৫০ শতাংশ বেশি। ইতিমধ্যে, ২১টি ভিন্ন ভিন্ন বাজারে শীর্ষ ৫ ব্র্যান্ডের তালিকায় থাকা রিয়েলমি গত বছরের তৃতীয় পাক্ষিকে সবচেয়ে দ্রুত বর্ধনশীল ৫জি অ্যান্ড্রয়েড ব্র্যান্ডে পরিণত হয়েছে।

স্কাই লি বলেন, “প্রতিষ্ঠানের আরঅ্যান্ডডি রিসোর্সের ৭০ শতাংশ হাই-এন্ড প্রযুক্তির ওপর বিশেষ গুরুত্ব দেয়ার সাথে আমরা প্রিমিয়াম বিভাগে প্রবেশের জন্য প্রযুক্তি এবং ডিজাইনে আরও বেশি উদ্ভাবনের চেষ্টা করবো।”

২০২১ রিয়েলমি’র জন্য একটি সাফল্যমণ্ডিত বছর ছিলো। কারণ, গত বছর রিয়েলমি বিশ্বব্যাপী সর্বাধিক বিক্রিত ব্র্যান্ডে পরিণত হয়। বিভিন্ন ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম আয়োজিত ব্ল্যাক ফ্রাইডে, ১১.১১ এবং দিওয়ালি উৎসবের মতো ক্যাম্পেইনে রিয়েলমি বিভিন্ন রেকর্ড গড়েছে এবং সর্বাধিক বিক্রিত পণ্যের তালিকার শীর্ষে জায়গা দখল করেছে।

বছরের সেরা ফ্ল্যাগশিপ ফোন রিয়েলমি জিটি নিও ২ বিশ্বের সবচেয়ে বড় সেল ক্যাম্পেইন দারাজের ১১.১১ সেলে ‘টপ ১ বেস্ট সেলিং ৫জি স্মার্টফোন’ এর স্বীকৃতি অর্জন করে। ভারতে, ফ্লিপকার্ট প্ল্যাটফর্মে ৪০ শতাংশের অধিক বিক্রয়ের সাথে এই প্ল্যাটফর্মেও রিয়েলমি শীর্ষ স্মার্টফোন ব্র্যান্ডের জায়গা দখল করে। এছাড়া, বাংলাদেশ, থাইল্যান্ড এবং ইন্দোনেশিয়াতে দারাজের মতো স্থানীয় প্ল্যাটফর্মে রিয়েলমি টপ ১ সর্বাধিক বিক্রিত স্মার্টফোন ব্র্যান্ড হিসেবে স্বীকৃতি পায়।

উল্লেখ্য যে, রিয়েলমি আগামী ৩ বছরের মধ্যে তরুণ ব্যবহারকারীদের কাছে ১০ কোটি ৫জি ফোন সরবরাহের লক্ষ্যে ৫জি পণ্যের এক বিস্তৃত পোর্টফলিও তৈরিতে কাজ করছে। এ স্মার্টফোন ব্র্যান্ডটি তাদের উন্নত ‘১+৫+টি’ কৌশলের সাথে এআইওটি ২.০ বিকাশের পর্যায়ে প্রবেশ করেছে। এর ফলে সাশ্রয়ী মূল্যের ৫জি ফোন ছাড়াও রিয়েলমি তরুণ প্রজন্মের ক্রেতাদের জন্য আরও অনেক এআইওটি পণ্য বাজারে নিয়ে আসবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর