• শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:২২ পূর্বাহ্ন
  • English Version

শুধু বই পড়ে কেউ কখনো উদ্যোক্তা হতে পারে না: খুলনার মেয়র খালেক

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক / ৫২ ফেসবুক শেয়ার
আপডেট সময় : বুধবার, ১৬ মার্চ, ২০২২
bd tech news

স্টার্টআপদের কল্যাণে মেন্টরিং প্রোগ্রাম অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বাংলাদেশে একটি স্টার্টআপ ইকোসিস্টেম গড়ে তুলতে সক্রিয়ভাবে কাজ করছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের (বিসিসি) আওতায় “উদ্ভাবন ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন একাডেমী প্রতিষ্ঠাকরণ (iDEA) প্রকল্প”। উদ্যোক্তাদের দক্ষতা বৃদ্ধিতে বাংলাদেশের প্রতিটি বিভাগে নানা প্রকার কৌশল অবলম্বনে আইডিয়া প্রকল্প হাতে নিচ্ছে বিভিন্ন কার্যক্রম যার মধ্যে মেন্টরিং অন্যতম। এরই আলোকে খুলনায় স্টার্টআপদের নিয়ে আন্তর্জাতিক মানের একটি মেন্টরিং প্রোগ্রাম আয়োজন করছে আইডিয়া। খুলনা জেলা শিল্পকলা একাডেমীর অডিটরিয়ামে ১৬ মার্চ ২০২২, বুধবার খুলনা স্টার্টআপ মেন্টরিং প্রোগ্রাম “লার্ন ফ্রম দ্যা মেনটরস্” এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়।

খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, প্রধান অতিথি হিসেবে উক্ত অনুষ্ঠানটির শুভ উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানটিতে গেস্ট অব অনার হিসেবে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম পিএএ এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে আইডিয়া প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক ও যুগ্মসচিব মো: আলতাফ হোসেন উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া, উক্ত অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেন খুলনার জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদার।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেন যে শুধু বই পড়ে কেউ কখনো উদ্যোক্তা হতে পারে না। বই পড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাস্তব অভিজ্ঞতা অর্জনের লক্ষ্যে থেকে স্টার্টআপদের নিয়মিত শিল্পকারখানা পরিদর্শন, সৃজনশীল ব্যবসা ও উদ্ভাবন সম্পর্কে ধারণা থাকা দরকার। তবেই শিক্ষার্থীগণ বিশ্বমানের উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে উঠতে পারবে। তিনি তার বক্তব্যে আরো বলেন যে এই মেন্টরিং প্রোগ্রামে অংশগ্রহণের মাধ্যমে অংশগ্রহণকারীগণ প্রশিক্ষণলব্ধ জ্ঞানকে কাজে লাগিয়ে নিজের সফলতা অর্জনের পাশাপাশি দেশ ও জাতিকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।

গেস্ট অব অনার হিসেবে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম পিএএ উদ্যোক্তাদের উদ্দেশ্য করে বলেন যে, আইডিয়া শুধু মাথায় রাখলে চলবে না বরং সেটাকে যথাযোগ্য পরিকল্পনার মাধ্যমে পরিণত অবস্থায় নিয়ে যেতে হবে। তিনি উদ্যোক্তাদের কোন ব্যর্থতায় নিরাশ না হয়ে, শ্রম ও মেধাকে কাজে লাগিয়ে সফলতার দিকে এগিয়ে যেতে অনুপ্রাণিত করেন। তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন যে বাংলাদেশের প্রতিটি জেলায় একটি করে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার তৈরি করতে হবে এবং সেই অনুযায়ী আমরা তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ সফলতার সাথে এগিয়ে যাচ্ছি।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আইডিয়া প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক ও যুগ্মসচিব মো: আলতাফ হোসেন বলেন যে ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ উন্নত অর্থনীতিতে উন্নীত হওয়ার একটি প্রক্রিয়ায় আছে। সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ নামক কর্মসূচির একটি অংশ হিসেবে আইসিটি বিভাগের আইডিয়া প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে। তিনি আরো বলেন যে, আইডিয়া প্রকল্প প্রাথমিকভাবে ৪০০ স্টার্টআপকে অনুদান প্রদানের লক্ষ্যে কাজ করা শুরু করে এবং এখন পর্যন্ত প্রায় ২৫০ টি উদ্যোক্তাকে অনুদান প্রদান করেছে। সবশেষে, তিনি স্টার্টআপদের সহযোগিতার লক্ষ্যে ভবিষ্যতেও আরো মেন্টরিং প্রোগ্রাম আয়োজন করা হবে বলে জানান।

অনুষ্ঠানের সভাপতি খুলনার জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদার বলেন যে আমাদের প্রাত্যহিক জীবনের প্রায় সকল ক্ষেত্রে আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশের সুফল পাচ্ছি। একইসাথে এটি আমাদের জীবনধারা পরিবর্তন করেছে এবং কাজকে সহজ করেছে। সবশেষে, তিনি আয়োজকসহ সকলকে খুলনার তরুণ ও উদ্যোক্তাদের নিয়ে এই মেন্টরিং প্রোগ্রাম আয়োজনের জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

দিনব্যাপি এই মেন্টরিং প্রোগ্রামে দেশের স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠানের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ স্টার্টআপদের বিভিন্ন সমস্যা ও সমাধানের উপায় নিয়ে আলোচনা করেন। এই আয়োজনে মার্কেটিং, সেলস, ফাইন্যান্স, লিগ্যালসহ নানা বিষয় নিয়ে বাস্তব অভিজ্ঞতা শেয়ার করেন অভিজ্ঞ এই মেন্টরগণ। খুলনা, যশোর, সাতক্ষীরা, বাগেরহাট, কুষ্টিয়া প্রভৃতি জেলা থেকে দুই শতাধিক উদ্যোক্তা এবং মেধাবী উদ্ভাবক এই মেন্টরিং প্রোগ্রামে বিনামূল্যে অংশ নেন। আইডিয়া প্রকল্পের উদ্যোগে আয়োজিত এই মেন্টরিং প্রোগ্রামটিতে সহযোগিতায় ছিল “স্টার্টআপ খুলনা”। খুলনা অঞ্চলের উদ্যোক্তাদের স্টার্টআপ সম্পর্কে গুণগত জ্ঞান প্রদান ও দক্ষ করে তোলাই এ মেন্টরিং প্রোগ্রামের লক্ষ্য যার মাধ্যমে খুলনা অঞ্চলে একটি গুণগত মানের স্টার্টআপ ইকোসিস্টেম গড়ে উঠবে বলে স্টার্টআপ খুলনা এবং আইডিয়া প্রকল্প আশাবাদী। উল্লেখ্য, স্টার্টআপদের উন্নয়নের লক্ষ্যে আইডিয়া প্রকল্পের এ ধরনের মেন্টরিং প্রোগ্রাম চলমান থাকবে বলে জানায় আইডিয়া কর্তৃপক্ষ।

থ্য-প্রযুক্তি ভিত্তিক যেকোন উদ্ভাবনী আইডিয়া নিয়ে আগ্রহী স্টার্টআপগণকে প্রি-সীড পর্যায়ে ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত অনুদানের জন্য আবেদন করতে ভিজিট করতে হবে www.idea.gov.bd ।

আওয়াজ, ১৬ মার্চ ২০২২


আপনার মতামত লিখুন :

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর